গ্যাজেটস স্মার্ট ডিভাইস

যেকোনো পরিবেশে টিকে থাকার ক্ষমতা সম্পন্ন ৩টি শক্তিশালী স্মার্টফোন

স্মার্টফোন আমাদের নিত্যদিনের সঙ্গী।একটি একক দিনও আমরা স্মার্টফোন ছাড়া থাকতে পারি না। আমরা সবসময় একে বন্ধুর মত আমাদের সাথে বহন করে চলি প্রতিটি মূহুর্তে। আমরা একে যত্ন করে রাখি ভেঙ্গে যেন না যায় ; পানি যেন না পরে- হাত থেকে যেন পড়ে না যায়। এসব কিছু দায়িত্ব আমাদের থেকে যায় স্মার্টফোনটি রক্ষা করার ক্ষেত্রে। একারনে অনেক সময় আমরা আমাদের এই ব্যবহার্য সঙ্গীকে সাথে নিতে পারি ; হয়ত সে পরিবেশে সেটি ক্ষতি হতে পারে বলে ; অথবা সে পরিবেশে তাকে রক্ষা করা বা সংরক্ষন করে চলা কঠিন হয়ে পড়লে। বিপদের সময় এই স্মার্টফোন সাথে থাকবে না ; যা খুবই দু:খজনক । যেমন: বন-জঙ্গল,যুদ্ধক্ষেত্র, পাহাড়-পর্বত অঞ্চল এসব জায়গায়। এসব জায়গায় চিরচলিত স্মার্টফোন অপারগতা প্রকাশ করে।

তবে হ্যা কিছু স্মার্টফোন এমনও আছে যেগুলো বিশেষায়িতভাবে তৈরি করা হয়েছে এসব দূর্গম অঞ্চলে ব্যবহার এবং টিকে থাকার মতন করে। আজ আলোচনা করব এমনই  শক্তিসালী ; দূর্গম পরিবেশেও আপনার হাতে থেকে আপনাকে সেবা দিতে সক্ষম এমন তিনটি স্মার্টফোন নিয়ে।

ব্লু ট্যাংক এক্সট্রিম ৫.০ [Blu Tank Xtreme 5.0]

এই ক্যাটাগরিস এর ভেতর এটি সবচেয়ে বাজেট ফোন। এর মূল্য আমেরিকান ১০৫ ডলার অর্থাৎ ৮০০০ টাকার মতন। শক্তিসালী সার্ভাইবেল স্মার্টফোন ক্যাটাগরিস এর মধ্যে Blu Tank Xtreme হল এন্ট্রি লেভেলের একটি ডিভাইস। এর বিশেষ রাবার দিয়ে তৈরি বডির কারনে কয়েক মিটার ওপর থেকে পড়লেও এর কিছুই হবে না। এটি ডাস্ট প্রুফ এবং ওয়াটার প্রুফ একটি স্মার্টফোন। ডিভাইসটি IP65 রেটেড ;সুতরাং পানিতে পড়লে ৩০ মিনিট পানিতে ডুবে থাকলেও এর কিছু হবে না ; ৩০ মিনিট এর পর পানি ঢুকলেও ঢুকতে পারে। তবে সবচেয়ে খারাপ দিক হলো ডিসপ্লে প্রোটেকশন। এতে ১ম জেনারেশন করনিং গরিলা গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে। সুতরাং স্ক্র্যাচ প্রুফ হলেও [Shatter Proof] নয় ; অর্থাৎ ওপর থেকে পরলে ডিসপ্লে ক্ষতি হওয়ার / ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

একনজরে Blu Tank Xtreme 5.0 :
  1. স্ক্রীন : ৫ ইঞ্চি IPS ডিসপ্লে,১২৮০*৭২০ পিক্সেল
  2. প্রোসেসর: ১.৩ GHz কোয়াড কোর মিডিয়াটেক এমটি৬৫৯০
  3. র্যাম : ১ জিবি
  4. স্টোরেজ/রম: ৮ জিবি
  5. ক্যামেরা : ৫ মেগাপিক্সেল
  6. ব্যাটারি : ৩০০০ এমএএইচ
  7. সীম : ডুয়াল
  8. অপারেটিং : এন্ড্রয়েড ৬.০

ক্যাট এস৬০ [CAT S60 ]

CAT সম্প্রতি বেশ কয়েকটি শক্তিসালী স্মার্টফোন বের করেছে ; এবং ভবিষ্যতেও এ আরও বের করবে। যেমন একটি হলো ক্যাট বি১৫। তবে সবগুলোর ভেতর ক্যাট এস৬০ মডেল সবচেয়ে বড় এবং শক্তিসালী। এর দাম আমেরিকান ৬৩০ ডলার বা ৫০ হাজার টাকার কাছাকাছি। এটি অনেকটা হাইএন্ড স্মার্টফোন ক্যাটাগরিস এর ভেতর পরে + এটি নেতৃত্ব দিচ্ছে শক্তিসালী বা সার্ভাইবেল স্মার্টফোন ক্যাটাগরিসকে ; এককথায় স্মার্টফোনের জগতে এটি বস[Boss]। স্মার্টফোনটিতে ডুবুরি ভাইদের জন্য বিশেষ সুবিধা আছে ; পানির ভেতরে যাওয়ার পর এতে থাকা একটি বিশেষ সুইচ অন করে দিলে এটি লক হয়ে যাবে ; তাই পানির অনেক অতলে গেলে অনেক চাপেও স্মার্টফোনটি সম্পূর্নভাবে সুরক্ষিত থাকবে। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা এবং যাতে রয়েছে থার্মাল ইমেজিং প্রযুক্তি[ Thermal Imaging Technology ]। সবার জন্য থার্মাল ইমেজিং দরকার হবে না ; তবে শিল্পক্ষেত্রে এটি অবিশ্বাস্য হাতিয়ার।

একনজরে CAT S60 :
  1. স্ক্রীন : ৪.৭ ইঞ্চি IPS ডিসপ্লে,১২৮০*৭২০ পিক্সেল
  2. প্রোসেসর: কোশালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬১৭
  3. র্যাম : ৩ জিবি
  4. স্টোরেজ/রম: ৩২ জিবি
  5. ক্যামেরা : ১৩ মেগাপিক্সেল
  6. ব্যাটারি : ৩৮০০ এমএএইচ
  7. সীম : ডুয়াল
  8. অপারেটিং : এন্ড্রয়েড ৬.০

Kyocera DuraForce Pro

  ফোনটির উচ্চারন কিয়োছেরা না কায়োছেরা এটাতে সন্দেহ আছে ; তবে নামের কথা বাদ দিয়ে এই স্মার্টফোনটিও CAT S60 এর মতন একটি [Rugged] স্মার্টফোন। ডিসপ্লে সাইজ যদি আপনার বড় প্রয়োজন হয় তাহলে এটি আপনার জন্য। ক্যাট এস ৬০ এর চাইতে  কিয়োছেরা ডুয়ালফোর্স প্রো এর ডিসপ্লে সাইজ ও রেজুলেশন বেশি।স্মার্টফোনটির ডিসপ্লেতে রয়েছে বিশেষ [unique sapphire] প্রোটেকশন। যা ডিসপ্লে পুরোপুরি ভাঙন প্রতিরোধক ও অবিনশ্বর করে তোলে।এর দাম আমেরিকান ৪২০ ডলার বা ৩৩৬০০ টাকা ।

একনজরে Kyocera DuraForce Pro :
  1. স্ক্রীন : ৫ ইঞ্চি IPS ডিসপ্লে,১২৮০*৭২০ পিক্সেল
  2. প্রোসেসর: কোশালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬১৭
  3. র্যাম : ৩ জিবি
  4. স্টোরেজ/রম: ৩২ জিবি
  5. ক্যামেরা : ১৩ মেগাপিক্সেল
  6. ব্যাটারি : ৩৪০০ এমএএইচ
  7. সীম : একক
  8. অপারেটিং : এন্ড্রয়েড ৬.০

তবে একদিক থেকে  ক্যাট এস৬০ ও কিয়োছেরা  প্রো কে বলা যায় – They are brothers from different mother

আশা করি আজকের আর্টিকেলটি ভালো লেগেছে। কেমন হয়েছে এবং এর মধ্যে আপনার কোন স্মার্টফোন পছন্দ কমেন্টে জানান। ইনসাআল্লাহ এভাবে নিত্যনতুন আর্টিকেল নিয়ে নিয়মিত আসতে পারব। ধন্যবাদ

 

লেখক সম্পর্কে

তৌহিদুর রহমান

যা তোমার ভালো লাগে এবং তোমার জন্য মঙ্গলকর ; তুমি সেটা করতে থাকো। অন্যে কি বলে সেটা তোমার শোনার প্রয়োজন নেই।

কমেন্ট যোগ করুন

কমেন্ট করতে ক্লিক করুন