স্মার্ট ডিভাইস

৭ টি সমস্যা নিয়ে আইফোন ৭ – Iphone 7 with 7 problems

আসসালামু আলাইকুম।কেমন আছেন সবাই।আজ কথা বলব আইফোন ৭ এর কয়েকটি সমস্যা নিয়ে।আশা করি আজকের পোস্টটি সবার ভালো লাগবে।[ads-post]

ডিজাইন :

প্রথম যে সমস্যাটি সেটি হল এর ডিজাইন আগের Iphone 6s এর মতন।তারপর যে সমস্যা সেটি হল এর সাইড বেজেস গুলো একটু বেশিই বড় এবং স্ক্রীন এর ওপরে এবং নিচে একটু বেশিই স্পেস রাখা হয়েছে।এতে করে স্মার্টফোন টি একহাতে ভালোমতন উইজ করাই কষ্টকর ব্যাপার মনে হতে পারে। আর এই তুলনায় প্রায় একই দামের galaxy s7 edge এর সাইড বেজেলস এবং উপরে নিচে স্পেস খুবই কম রাখা হয়েছে,এতে করে এটি যেমন হ্যান্ডি তেমনই একটি কমপ্যাক্ট – সহজে ব্যবহাযোগ্য স্মার্টফোন আইফোন ৭ প্লাস র তুলনায়। 
আর Iphone 7 Plus এর ওজন ১৮০ গ্রাম এবং Samsung Galaxy S7 edge এর ওজন ১৫৭ গ্রাম।তাই ওজনের দিক দিয়েও আইফোন বেশি। [ads-post]

ডিসপ্লে:

আইফোন ৭ প্লাস এর ডিসপ্লে যথেষ্ঠ ভালো ক্রিস্প,ভালো পিক্সেল ডেনসিটি, আইপিএস প্রযুক্তি ইত্যাদি ইত্যাদি এবং এটি একটি ফুল এইচডি ডিসপ্লে HD Display ।কিন্তু Samsung galaxy s7 edge এর সাথে তুলনা করলে এটি কিছুই না; কেননা এতে রয়েছে সুপার অমোলেড ডিসপ্লে- Super Amoled  Displayযেটি কিনা একটি 2K ডিসপ্লে।

হেডফোন জ্যাক:

একে তে অনেক সমস্যা আছেই তার ওপর আরেকটি সমস্যা হেডফোন জ্যাক না থাকা; আমরা জানি যে যে ফোন ফুল ওয়াটারপ্রুফ করতে হেডফোন জ্যাক রাখা হয়নি,তবে এটি যো অনেক সময় আমাদের বিড়ম্বনার মুখে ফেলতে পারে এ বিষয়েও কিন্তু আমরা অজ্ঞ নই।
এর বিকল্প হিসেবে হয়ত ব্লুটুথ বা চার্জিং পোর্ট থেকে আমরা হেডফোন এর লাইন নিতে পারি, তবে এটিও বিড়ম্বনার বাইরে নয়।

ফাস্ট চার্জিং নেই: 

এখন তো ১০-১২ হাজার টাকার চাইনিজ ফোনেও ফাস্ট চার্জিং এর সুবিধা থাকে, আর আইফোন তো প্রিমিয়াম সাথে ২৯০০ MaH ব্যাটারি,ফুল চার্জিং হতে কম হলেও আড়াই হতে তিন ঘন্টা লাগবেই,আর এই স্মার্টফোনে ফাস্ট চার্জিং সুবিধা না থাকা দুঃখজনক।যেখানে গুগলের নতুন Google Pixel স্মার্টফোনে ১৫ মিনিটে চার্জিং এ ৭ ঘন্টার ব্যাটারি ব্যাক আপ সুবিধা দেওয়া হয়েছে।
সুতরাং ফাস্ট চার্জিং না থাকাটা Iphone 7 এবং Iphone 7 Plus এর জন্য অত্যান্ত দুঃখজনক ব্যাপার।

নোটিফিকেশন লাইট নেই:

এখন তো ৪ হাজার টাকার স্মার্টফোনেও নোটিফিকেশন লাইট থাকে,নোটিফিকেশন আছে কিনা দেখার সুবিধার্থে এমনকি চার্জিং এর সময় ফোন চার্জ হচ্ছে কিনা তাও বোজা যায় এই নোটিফিকেশন লাইট এর মাধ্যমে,তবে Iphone 7  এবং Iphone 7 Plus এ কোন রকম নোটিফিকেশন লাইট নেই,নোটিফিকেশন আসছে কিনা তা দেখার জন্য ফোনের স্ক্রীন অন করে তারপর দেখতে হবে।তবে Galaxy S7 edge স্যামসাং নোটিফিকেশন লাইট এর সুবিধা দিয়েছে।
ওয়্যারলেস চার্জিং নেই :
যেখানে একটি স্মার্টফোনে স্মার্টফোনো ফাস্ট চার্জিং এর ফিচার টি নেই,সেখানে কিভাবে আমরা ওয়্যারলেস চার্জিং আশা করি। আইফোন ৭ এ এই ওয়্যারলেস চার্জিং ফিচার টিও নেই।

স্টোরেজ নিয়ে সমস্যা:

আইফোনে আলাদা ভাবে এসডি কার্ড লাগানো যায় না তা তো আগে থেকেই জানি, আইফোন ৭ এবং ৭ প্লাস আছে ৩২ জিবি ১২৮ জিবি এবং ২৫৬ জিবি এর মডেল আর ওটিজি অনেক ঝামেলার মধ্য দিয়ে লাগানো যায় তবে তা অনেক এক্সপেনসিভ ও বটে।

আশা করি পোস্টের মূল সারমর্ম বুঝতে পেরেছেন।ভালো লাগলে কমেন্ট এ জানাবেন।বেশী করে শেয়ার করুন।

ট্যাগস

লেখক সম্পর্কে

তৌহিদুর রহমান

যা তোমার ভালো লাগে এবং তোমার জন্য মঙ্গলকর ; তুমি সেটা করতে থাকো। অন্যে কি বলে সেটা তোমার শোনার প্রয়োজন নেই।

কমেন্ট যোগ করুন

কমেন্ট করতে ক্লিক করুন